রোবট সোফিয়া সম্পর্কে বিস্তারিত ও আশ্চর্য্যজনক তথ্য

রোবট সোফিয়া, বর্তমানে এই নামটি অনেক শোনা যাচ্ছে। সোফিয়া কোন মেয়ে নয় বরং সোফিয়া হল বিশ্বকে অবাক করানোর মতো এক রোবট। অনেক আগে থেকেই মানুষ চেষ্টা করছিল রোবট তৈরীর যা কিনা একদম মানুষের মতোই দেখতে পারবে চলাচল করতে পারবে আর পারবে নিজে থেকে কোন সিদ্ধান্ত নিতে। “হ্যানসন রোবটিক্স” একটি হংকং ভিত্তিক প্রতিষ্ঠান মূলত তৈরি করে এই মানবাকৃতির রোবট। রোবটটি তৈরির সময় তারা যে বিষয়ের ওপর বেশি জোড় দেয় তা হল রোবটটি যাতে সামাজিক যোগাযোগ করতে পারে। অর্থাৎ এটি যেন মানুষের ও মানুষের ব্যবহারের সাথে খাপ খাইয়ে নিতে এমনকি সে যাতে কোন কিছু দেখে নিজে থেকে শিখতে  পারে।


সোফিয়ার রোবট হিসেবে কিছু গুণাবলিঃ

  • সোফিয়া মানুষের ব্যবহারের সাথে খাপ খাইয়ে নিতে পারে।
  • যা কোন জিনিষ দেখে শিখে নিতে পারে।
  • বাস্তব বুদ্ধিসম্পন্ন প্রশ্নের উত্তর দিতে সক্ষম।
  • মানুষের সাথে যোগাযোগ রাখতে পারে।
  • এটি কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা সম্পন্ন।
  • সোফিয়া মানুষের অঙ্গভঙ্গি এবং মুখের অভিব্যক্তি অবিকল  নকল করতে পারে

সোফিয়া এমন একটি রোবট যাকে সৌদি আরব ২০১৭ সালে নাগরিকত্ব দেয়। আর এই খবর আলোড়ন সৃষ্টি করে দেয় যে ১ম কোন রোবট কোন দেশের নাগরিকতা লাভ করেছে।

সোফিয়া সম্পর্কিত তথ্যঃ

  • সোফিয়াকে একজন নারী রোবট হিসেবে তৈরী করা হয়। অভিনেত্রী অড্রে হেপবার্ন এর মতো করে।
  • সোফিয়ার বক্তব্য অনুযায়ী সে ২০১৫ সালের ১৯ এপ্রিল থেকে সক্রিয়।
  • সোফিয়া প্রস্তুতকারীর নাম ডেভিড হ্যানসন
  • বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দিতে পারে ও বিভিন্ন বিষয়ের উপর কথোকপথন চালিয়ে যেতে পারে
  • তথ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ এবং মুখে বিন্যাস বা ফেসিয়াল রেকজনাইজেশন করতে পারার মতো ক্ষমতা সোফিয়ার মাঝে রয়েছে।
  • সোফিয়া আলফাবেট ইনকর্পোরেটেড নামক কন্ঠ পরিচিতি প্রযুক্তি ব্যবহার  করে।
  • রোবটটি নকশা এমন ভাবে  করা হয় যাতে সময় ও অবস্থা অনুযায়ী সে পরিস্থিতি সামলে নিতে পারে।
  • সিঙ্গুলারিটিনেট নামের এক প্রতিষ্ঠান সোফিয়ার বুদ্ধিমত্যার সফটওয়্যার নকশা করে।
  • সোফিয়ার কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তাটি তার কাজ, কথাবার্তা এবং তথ্য প্রক্রিয়াকরণ করে যা ভবিষ্যতে প্রতিক্রয়া উন্নত করতে সহায়তা করবে।

সোফিয়ার চলাফেরাঃ

সোফিয় ঘন্টায় ০.৬ মাইল বেগে হাঁটতে পারে। সোফিয়ার এই ছোট্ট পদক্ষেপটি রোবট জগতের একটি বড় পাওনা। শুধু রোবট দেরি নয় মানব সমাজের জন্যও এটিই সফলতা। শুধু হাঁটা চলাই নয় বেশ কিছু নাচের অঙ্গভঙ্গি করাতেও রপ্ত জনপ্রিয় রোবট সোফিয়া। সে এখন নিজে নিজে তার মাথাকে নাড়তে সক্ষম।  শুধু তাই নয় মুখ ঘোরানোসহ চোখের পলক ফেলতেও এখন পারে সে।সোফিয়া ৬০ টির বেশি অঙ্গভঙ্গি করতে পারে।

সোফিয়া কে নকশাঃ

সোফিয়াকে নকশা করার সময় এটি খেয়াল রেখে নকশা করা হয় যাতে সে ঘরের মানুষদের সেবা করতে পারে। অনেকটা প্রতিসেবাকারীদের মতোন। অনুষ্ঠান বা বড় কোন পার্টি গুলোতেও যাতে সোফিয়া সাহায্য করতে পারে তাকে এমন ক্ষমতাও দেওয়া হয়েছে বলে জানান সোফিয়া প্রস্তুতকারী ডেভিড হ্যানসন। সে সোফিয়াকে মানুষের সাথে যোগাযোগ করার মতো  দক্ষতা দিয়েই তৈরী করেছে ।

সোফিয়ার সাথে সাক্ষাতকারঃ

সোফিয়াকে সামাজিক পরিবেশে রাখার মতো করেই তৈরি করা হয়েছে। সোফিয়া সম্পুর্ণ রূপে তৈরী হওয়ার পর তাকে নিয়ে আসা হয় জন সম্মুখে। বিভিন্ন দেশে গিয়ে সোফিয়া দিয়ে আসে সাক্ষাতকার। আর সকলকে আশ্চর্য করে দেওয়ার মতোও কথা বলে সোফিয়া।

  • সিক্সটি মিনিটসঃ সোফিয়ার সাক্ষাতকার নেন চার্লি রোজ “সিক্সটি মিনিটস” এর আলোচনায় সেখানে সোফিয়া কিছু প্রশ্নের অসাধরন উত্তর দেয় আর কিছু প্রশ্নের উত্তর দেয় অর্থহীন।
  • সিএনবিসিঃ সিএনবিসি এর একটি সাক্ষাৎকারে সোফিয়া বলে যে সে(প্রশ্নকারী) খুব বেশি “এলন মাস্ক” পড়ছে এবং হলিউড চলচ্চিত্র দেখছে”।
  • জাতিসংঘঃ ২০১৭ সালের ১১ অক্টোবর জাতিসংঘের উপ মহাসচিব আমিনা জে মোহাম্মদের সাথে পরিচিত হয় সোফিয়া।

বাংলাদেশে সোফিয়াঃ

ঢাকায় ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড ২০১৭ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আসে সোফিয়া । সেখানে প্রধানমন্ত্রীর সাথে আলাপও করে সে। “কেমন আছ?” জিজ্ঞাসার মাধ্যমেই শুরু হয় সোফিয়া আর প্রধানমন্ত্রীর কুশল বিনিময়। সোফিয়া ঢাকার আসার আগে শেখ হাসিনা সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্য জেনে এসেছে। এমনকি তার নাতনির নামও যে সোফিয়া সে কথাও রোবট সোফিয়ার অজানা নয় বলে জানান রোবট সোফিয়া। ডিজিটাল বাংলাদেশ সম্পর্কে জানতে চাইলে সোফিয়া জানায় ডিজিটাল বাংলাদেশের উদ্দেশ্য ও  বাংলাদেশের অগ্রগতির নানা তথ্য।

তার এমন কথপোকথনে মুগ্ধ হয়েছে দর্শকরা। প্রযুক্তির এমন উন্নতিতে খুশি হয়েছেন সবাই। সোফিয়া শুধু একটি রোবট নয় এটি একটি সফলতার প্রতিচ্ছবিও বটে।

উপরোক্ত বিষয়টি পছন্দ হলে লাইক দিন, উপকারী মনে হলে অন্যদের সাথে শেয়ার করুন।

comments

Admin

উপরোক্ত আর্টিকেলটি লিখেছেন | Email: admin@banglacourse.com | Facebook: www.facebook.com/BanglaCourse