bKash App Download | বিকাশ অ্যাপ ডাউনলোড | বিস্তারিত রিভিউ

bKash App Download লিংকসহ বিস্তারিত রিভিউ পাবেন আজকের এই আর্টিকেলে। বিকাশ অ্যাপ এর সকল ফিচারের বিস্তারিত বর্ণনা তো থাকছেই। সেই সাথে bKash App এর বিভিন্ন ভাল মন্দ দিকও তুলে ধরেছি। তাই আর কথা না বাড়িয়ে চলুন শুরু করা যাক। [বিকাশ অ্যাপের ভিডিও রিভিউ দেখুন]

bKash App review

বিকাশ অ্যাপ থেকে যেসব সুবিধা পাওয়া যাবে

  • টাকা পাঠানো [কন্টাক লিস্ট থেকে নম্বর সিলেক্ট করার ব্যবস্থা আছে]
  • ব্যালেন্স চেক [অ্যাপের একদম উপরেই রয়েছে এই ফিচার]
  • টাকা রিচার্জ করা [নিজের নাম্বার অটো সিলেক্ট করার অপশন আছে]
  • ক্যাশ আউট [QR Coder এর মাধ্যমে এজেন্ট নাম্বার স্ক্যান করে ক্যাশ আউট করতে পারবেন। ফলে এজেন্ট নাম্বার টাইপ করার ঝামেলা শেষ]
  • কেনাকাটার পেইমেন্ট [এখানেও QR কোড স্ক্যান করে মার্চেন্টের নাম্বার টাইপ না করেই পেমেন্ট করার ব্যবস্থা আছে]
  • রিকুয়েস্ট মানি [নিজের বিকাশ ব্যালেন্স শেষ হয়ে গেলে অন্য বিকাশ অ্যাপ অ্যাকাউন্টধারীদের কাছে পরিমাণ উল্লেখ করে টাকা চেয়ে রিকুয়েস্ট পাঠাতে পারবেন]
  • রেফার ফ্রেন্ড [বন্ধুদের বিকাশ অ্যাপ ব্যবহার করার জন্য অনুরোধ পাঠানোর ব্যবস্থা আছে]
  • অ্যাপের একদম উপরের ডান পাশে থাকছে সেটিংস আইকোন ও বামপাশে থাকছে নটিফিকেশন আইকোন
  • সেন্ড মানি একদম ফ্রি। ক্যাশ আউটের ক্ষেত্রে প্রতি হাজারে খরচ ১৫ টাকা।

 

bKash Settings এ যা যা থাকছে

  • নটিফিকেশন [বিভিন্ন অফারসহ বিকাশ অ্যাপের সকল নটিফিকেশন এই অংশে থাকবে]
  • স্টেটমেন্ট [সর্বশেষ করা ট্রান্সেকশন হিস্টোরি ও সামারির তালিকা দেখা যাবে এই অংশে]
  • লিমিট [ক্যাশ ইন, সেন্ড মানি, রিচার্জ, পেমেন্ট, ক্যাশ আউট, রিকুয়েস্ট মানি ও রেমিটেন্সের ক্ষেত্রে সর্বনিম্ন ও সর্বোচ্চ দৈনিক ও মাসিক লিমিটেশন দেখা যাবে এখানে]
  • কন্টাক [সেভ করা নাম্বার থেকে কাঙ্খিত ব্যক্তিকে খুঁজে বের করে তাকে টাকা পাঠানো, রিচার্জ করে দেয়া বা টাকা চেয়ে আবেদন করা যাবে এই অংশে]
  • চেঞ্জ পিন [এটা নিয়ে বলার দরকার নেই 😛 ]
  • সেটিংস [এখান থেকে নটিফিকেশন, অ্যাকাউন্ট, প্রোফাইল নাম বা পিকচার সেটিংস চেঞ্জ করা যাবে]

 

বিকাশ অ্যাপে যেসব সমস্যা রয়েছে

  • প্রোফাইল পিকচার গ্যালারি থেকে সিলেক্ট করার অপশন ও ক্যামেরা দিয়ে ক্যাপচার করে অ্যাড করার অপশন থাকলেও পরেরটি কাজ করে না 🙁
  • অ্যাপ ওপেন করার সময় পিন চাইবে [এটা ঠিক আছে] কিন্তু কোন স্টেপ সম্পন্ন করার সময় আবার পিন চাচ্ছে যেমন রিকুয়েন্ট মানি, ক্যাশ আউট ইত্যাদি 🙁 বারবার পিন টাইপ করাটা আমার কাছে বিরক্তিকর
  • ইন্টারনেট কানেকশন ছাড়া কোন কাজ করে না 😛 [ইন্টারনেট ছাড়া কাজ করার কথাও না যদিও 🙂 ]
  • রুট করা মোবাইল ফোনে bKash App কাজ করে না
  • অ্যান্ড্রয়েড ভার্সন 4.4 এর নিচে হলে উক্ত মোবাইল ফোনে bKash App কাজ করে না। যদিও অনেকের ম্যার্সম্যালো (6.0), নুগ্যাট (7.0), ওরিও (8.0) ভার্সনও কাজ করছে না বলে অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে। এছাড়াও OnePlus 3 (8.1), Xiaomi mi5 (7), Mi note 3, Redmi 3s (8.1) এসব ডিভাইসে বিকাশ অ্যাপ কাজ করছে না বলে অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে প্লেস্টোরের বিকাশ অ্যাপের রিভিওতে।
  • বিকাশ অ্যাপে লগ আউট বাটন দেয়া হলেও তা কাজ করে না। অর্থ্যাৎ লগ আউট করে অন্য বিকাশ অ্যাকাউন্টে প্রবেশ করতে পারবেন না। এক্ষেত্রে ফোনের সেটিং থেকে অ্যাপ ডাটা মুছে দিয়ে নতুন করে বিকাশ অ্যাপ ওপেন করে অন্য বিকাশ অ্যাকাউন্টে প্রবেশ করা যাবে।
  • পর পর ২ বার বিকাশ অ্যাপে ভুল পিন নাম্বার দিলে বিকাশ অ্যাপ ৬ ঘণ্টার জন্য লক হয়ে যাবে। ৬ ঘণ্টা পরে লক ছুটে যাবার পর যদি ১ ঘণ্টার মধ্যে আবার ভুল পিন দিয়ে ট্রাই করেন তাহলে যে বিকাশ অ্যাকাউন্ট দিয়ে লগিন করার চেষ্টা করছিলেন সেই বিকাশ অ্যাকাউন্টটিই লকড হয়ে যাবে। অ্যাকাউন্ট ফিরে পাবার জন্য কাস্টমার কেয়ারে কল করতে হবে।
  • অ্যাপটির সাইজ ২৬+ মেগাবাইট যা খুবই বেশি বড় সাইজের বলে অনেক ব্যবহারকারী ইতোমধ্যে অভিযোগ জানিয়েছেন।
  • সিম কোম্পানিগুলো ৫ বা ৯ টাকা রিচার্জ অফার দিলেও বিকাশ থেকে ১০ টাকার নিচে রিচার্জ করার কোন সুযোগ এখনও দেয়া হয় নি।
  • অ্যাপ চালু হবার সাথে সাথেই লাউড স্পিকারে একটা মেয়ে কথা বলা শুরু করে যা অনেকের কাছেই খুবই বিরক্তির। যদিও সেটা পরে বিকাশ সেটিংস থেকে বন্ধ করা যায়।

 

bKash App Download

bKash App Download করার জন্য দুটি অপশন রয়েছে একটি অ্যান্ড্রয়েড আরেকটি আইফোনের জন্য। Android ফোনের জন্য bKash App ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন আর iPhone এর জন্য bKash App ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন। তো আপনি অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারী হলে Get it on google play তে ক্লিক করুন। তাহলে উক্ত লিংকটি আপনাকে প্লেস্টোরে রিডাইরেক্ট করে নিয়ে যাবে।

এবার প্লেস্টোরের ইন্সটল বাটনে ক্লিক করে অ্যাপটি ইন্সটল করে নিন। এই সাইজ প্রায় ২৬ মেগাবাইট। ইনস্টল করা হয়ে গেলে ওপেন করুন। তাহলে bKash App এর স্বাগতম পেইজ আসবে। সেখান থেকে “শুরু করুন” বাটনে ক্লিক করুন। তাহলে আপনার বিকাশ মোবাইল নাম্বার চাইবে। তো আপনার নাম্বারটি প্রবেশ করিয়ে রাইট অ্যারো চিহ্নতে ক্লিক করে নেক্সট করুন। এরপর আপনার পিন নাম্বার চাইলে সেটাও দিয়ে দিন। এখন দেখুন যাচাইকরণ পিন চাচ্ছে। আপনার ফোনে দেখুন ৬ সংখ্যার একটি পিন গিয়েছে সেটি প্রবেশ করিয়ে নেক্সট করুন। এরপর আপনার কাঙ্খিত ভাষা সিলেক্ট করুন। এরপর প্রোফাইল পিকচার সেট করুন। প্রোফাইল পিকচার সেট করার সময় বলে দিতে পারবেন যে, আপনার পিকচার অন্য বিকাশ অ্যাপ ব্যবহারকারীরা দেখতে পাবে কি না। তারপর I agree বাটনে ক্লিক করে নেক্সট করুন। এখন আবার আপনার পিন চাইবে। পিন দিয়ে নেক্সট করুন। সকল স্টেপগুলো সম্পন্ন করা হয়ে গেলে নিচের মত স্ক্রিন দেখতে পাবেন।

বিকাশ অ্যাপ রিভিউ

তো, বুঝতেই পারছেন bKash App এ থাকছে অনেক মন মাতানো সব অস্থির ফিচার। যে কোন পেমেন্ট করার সময় সেটি সেভ করে রাখার ব্যবস্থাও আছে। এবং পেমেন্ট রিমাইন্ডার করার ব্যবস্থাও বিকাশ অ্যাপে সংযুক্ত করা আছে। অর্থাৎ প্রতি সপ্তাহে বা মাসে নির্দিষ্ট ব্যক্তিকে পেমেন্ট করার দরকার হলে বিকাশ অ্যাপ আপনাকে তা স্বরণ করিয়ে দেবে। বিকাশ অ্যাপ শতভাগ নিরাপদ। তাই যদি এখনও bKash App Download না করে থাকেন তাহলে জলদি করুন। আর অ্যাপ নিয়ে যে কোন প্রশ্ন থাকলে নিচে মন্তব্য করুন।

উপরোক্ত বিষয়টি পছন্দ হলে লাইক দিন, উপকারী মনে হলে অন্যদের সাথে শেয়ার করুন।

comments

Admin

উপরোক্ত আর্টিকেলটি লিখেছেন | Email: admin@banglacourse.com | Facebook: www.facebook.com/BanglaCourse