গুগল ম্যাপ কিভাবে কাজ করে ?

আমাদের এই বিশাল পৃথিবীতে রয়েছে অনেক দেশ ও সাগর-মহাসাগর। প্রতিটি জায়গার রয়েছে ভিন্ন ভিন্ন নাম এবং বৈশিষ্ঠ্য। এমন একটি সময় ছিল যখন মানুষ চাইলেও একসাথে পৃথিবীর কোথায় কোন জায়গা রয়েছে তা দেখতে পারত না। এরপর একটি বড় মাপের কাগজে পৃথিবীর মানচিত্র আঁকা হয়। এই মানচিত্রে মোটামুটিভাবে পৃথিবীর প্রায় সবগুলো দেশ ও অল্প কিছু জায়গার নাম উল্লেখ করা হয়। কোন জায়গার খোঁজ করতে গেলে আমরা এই বড় কাগজে আঁকা মানচিত্রের সাহায্য নিতাম। প্রায় বেশিরভাগ বাড়িতেই আমরা এই বড় কাগজের মানচিত্র ঝুলানো দেখতে পেতাম। এরপর দিন দিন এটিকে উন্নত করা হয় এবং এটিকে একসময় অনলাইনে নিয়ে আসা হয় ও নতুন নতুন তথ্য যোগ করা হয়।

আর এই মানচিত্রকে বিস্তারিত বর্ণনাসহ অনালাইনে নিয়ে আসার কাজটি করেছে গুগল। বর্তমানে গুগল এর প্রচেষ্টায় এই মানচিত্র এখন আমাদের হাতের মুঠোয়। গুগলের অবদানে তৈরী গুগল ম্যাপ আমরা খুব সহজেই বিনামুল্যে ব্যবহার করে নিজেদের প্রতিদিনের জীবনকে অনেক সহজ করে নিতে পারি। আমরা কমবেশি প্রায় সকলেই গুগল এর তৈরী গুগল ম্যাপের কোন না কোন সেবা ব্যবহার করেছি। এই গুগল ম্যাপের রয়েছে বিশাল এক তথ্য ভান্ডার। আর এই তথ্য ভান্ডারের সাহায্যে গুগল আমাদের স্ট্রিট ভিউ,স্যাটেলাইট ভিউ,রিয়েল ট্রাফিক আপডেট ইত্যাদির মত সার্ভিসগুলো দিয়ে আসছে। কিন্তু চিন্তার বিষয় হল এই বিশাল তথ্য নিয়ে তৈরী গুগল ম্যাপ কিভাবে কাজ করে। কিভাবে এত তথ্য সংগ্রহ করে। তাই এখন আমরা জেনে নেব গুগল ম্যাপ কি? এবং এটি কিভাবে কাজ করে ?

গুগল ম্যাপ কি

গুগল ম্যাপ কি ?

গুগল ম্যাপ এমন একটি ওয়েব সার্ভিস যা আমাদের পৃথিবীর যেকোন জায়গার মানচিত্র অনেক তথ্যসহ খুব সুন্দরভাবে নির্দেশনা দিয়ে বুঝিয়ে ও দেখিয়ে দেয়। এটি একটি গুগল এর দ্বারা নির্মিত ওয়েব সার্ভিস। এই গুগল ম্যাপে রয়েছে অসাধারণ সব ফিচার ও সুবিধা এবং সেবা। এসব ব্যবহারের ফলে বর্তমানে আমাদের দৈনন্দিন জীবন প্রায় অনেকটাই সহজ হয়ে গিয়েছে। এটি ব্যবহার করে আমরা খুব সহজেই যেকোন জায়গার অবস্থান বের করে নিতে পারব মুহূর্তের মধ্যেই।

শুধু কি অবস্থান ! সেই জায়গা থেকে আমরা কত দূরে অবস্থান করছি, কত সময় লাগবে আমাদের সেখানে যেতে,পায়ে হেটে গেলে কত সময় লাগবে,বাস বা অন্য কোন যানবাহনে গেলে কত সময় লাগবে,রাস্তায় ট্রাফিকের কি অবস্থা,কোথায় কোন রেস্তোরা বা দোকান আছে সবকিছু বলে দিবে এই গুগল ম্যাপ। তাহলে বুঝতেই পারছেন এটি কত বড় একটি প্রোজেক্ট। এই এত সেবা দেয়া ও তথ্য সংগ্রহ করার জন্য গুগলকে কি কি করতে হয় এবং কিভাবে করে সেটিই এখন আমরা জানব।

কিভাবে তথ্য সংগ্রহ করে ?

বিশাল এই তথ্য ভান্ডার তৈরী করা গুগল এর একার পক্ষে অনেক কঠিন ও কষ্টকর হয়ে যেত। তাই গুগল সর্বাধিক ও অনুমোদিত তথ্য দিতে পারে এমন অনেক সংস্থা বা প্রতিষ্ঠানের সাথে চুক্তি করেছে। এসব সংস্থা প্রতিনিয়ত গুগলকে বিস্তারিতভাবে বিশাল পরিমান তথ্য দিয়ে থাকে। এসব তথ্যের মধ্যে রয়েছে কোন জায়গার পরিবর্তন হওয়া নাম,নতুন কোন সড়ক বা জলপথ ইত্যাদি। আর এসব তথ্যের কারণেই গুগল ম্যাপ সর্বদা আপডেট থাকে। এছাড়াও গুগল বিভিন্ন মাধ্যমে এসব তথ্য সংগ্রহ করে থাকে।

গুগলের স্মার্ট স্ট্রিট ভিউ গাড়ি

তথ্যের উৎস

প্রথম দিকে তথ্য সংগ্রহে গুগল স্যাটেলাইট ব্যবহার করে বিভিন্ন এলাকার ও রাস্তার 2D ছবি সংগ্রহ করে। কিন্তু এতে কিছু সমস্যা দেখা দেয় যেমন রাস্তার আশেপাশে কি আছে তা বিস্তারিতভাবে জানা সম্ভব ছিল না। তাই পরবর্তিতে গুগল একটি উন্নতমানের স্মার্ট গাড়ি যাতায়াত সম্ভব এমন প্রতিটি রাস্তায় চালায় যার উপরে লাগানো রয়েছে ক্যামেরা ও জিপিএস ট্র্যাকিং সিস্টেম। এই গাড়িটির ফলে পুরো রাস্তা এবং এর আশেপাশে কি আছে ,বিভিন্ন দোকান বা প্রতিষ্ঠানের নাম ইত্যাদি বিস্তারিতভাবে জানতে এবং রাস্তার 3D ছবি সংগ্রহ করতে সক্ষম হয়। এছাড়াও যেসব জায়গায় গাড়ি চালানো সম্ভব নয় সেখানে হেলিকপ্টার বা প্লেনে করে সেসব জায়গার 3D ছবি তুলে তথ্য সংগ্রহ করা হয়। আর এসব তথ্য ও 3D ছবির কারণে আমরা গুগল এর স্ট্রিট ভিউ অপশনটি ব্যবহার করে যেকোন রাস্তার বাস্তব ছবি দেখতে পারি।

এছাড়াও গুগল তথ্য সংগ্রহের জন্য ইয়োলো পেজ ব্যবহার করে। এটি ব্যবহার করে বিভিন্ন জায়গার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান বা ব্যাক্তির তথ্য সংগ্রহ করে যেমন প্রতিষ্ঠানটি কতক্ষন এবং কোন কোন দিন খোলা থাকে বা বন্ধ থাকে ইত্যাদি।

বর্তমানে আমরা আমাদের বিভিন্ন ধরনের ইলেকট্রনিক্স ডিভাইসে থাকা লোকেশান সার্ভিস ও জিপিএস এর মাধ্যমে গুগলকে প্রতিনিয়ত নানা ধরণের তথ্য দিয়ে চলেছি। সুতরাং আমারাও একেক জন গুগলের তথ্যের উৎস। গুগল এসব তথ্য সঞ্চয় করে গুগল ম্যাপকে আপডেট রাখছে এবং প্রতিনিয়ত আমাদেরকে অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়ে আসছে।

গুগলকে অন্যভাবে ম্যাজিকও বলা যেতে পারে। কারণ গুগল এই অনলাইন ম্যাপ এর সাহায্যে আমাদের দৈনন্দিন জীবনকে অনেক বেশি সহজ করে দিয়েছে। মানুষের ব্যাক্তিগত জীবনকে উন্নত করতে এই গুগল ম্যাপের বিকল্প নেই।

উপরোক্ত বিষয়টি পছন্দ হলে লাইক দিন, উপকারী মনে হলে অন্যদের সাথে শেয়ার করুন।

comments