পৃথিবীর কত অংশ আপনি এক নজরে দেখতে পান?

আমাদের সকলের রয়েছে দুটি গুরুত্ত পূর্ণ অঙ্গ যা দ্বারা আমরা সুন্দর পৃথিবীর সুন্দরয্য উপভোগ করি। আর সেটি হলো চোখের সাহায্যে। চোখ ছাড়া আমরা এই সুন্দর পৃথিবীর কিছুই দেখতে পেতাম না। তো এখন কথা হচ্ছে যে, পৃথিবীর কত অংশ আপনি এক নজরে দেখতে পারেন? যদি আপনি জেনে থাকেন তাহলে আর একবার জানুন। আর যদি না জেনে থাকেন তাহলে জেনে নিন। তো চলুন আলোচনা শুরু করা যাক।

চোখ। যা দ্বারা মানুষ সবকিছু দেখতে পাই। এবং মজার ব্যাপার হলো যে আপনার যদি চোখ না থাকত তাহলে আপনি আমার এই পোষ্ট ও পড়তে পারতেন না। চোখ প্রাণীর আলোক-সংবেদনশীল আঙ্গ ও দর্শনেন্দ্রীয়। প্রানীজগতের সবচেয়ে সরল চোক কেবল আলোর উপস্থিতি বা অনুপস্থিতির পার্থক্য করতে পারে। উন্নত প্রানীদের অপেক্ষাকৃত জটিল গঠনের চোখ দিয়ে আকৃতি ও আকার পৃথক করা যায়। যখন কোন বস্তু আমাদের চোখের সামনে আসে তখন আলোক রশ্নি কর্ণিয়ার ভিতরে যায়। এবং সেখন দিয়ে অতিক্রম করার সময় বিভিন্ন কোণে আপতিত হয় তখন চোখের রেটিনার সাহায্যে সেই সকল আলোক রশ্নি গুলো একত্রে  একটি উল্টো  প্রতিবিম্ব  তৈরী হয় এবং আমরা দেখতে পাই।

আর আমাদের দেখার জন্য বয়স ভেদে বিভিন্ন মানুষের দেখার ক্ষমতা ভিন্ন ভিন্ন। কেউ কাছের বস্তু দেখতে পাই না। আবার কেউ দূরের বস্তু দেখতে পাই না। তো কে কতাটা দেখতা পাবে সেটা নির্ভর করবে তার চোখ কতটা দেখতে পাই তার উপর।  তবে একজন স্বাভাবিক মানুষের দৃষ্টির নিকটতম বিন্দু  হলো ২৫ সেমি আর দূরবিন্দু অসীম হয়। অর্থাৎ একজন স্বাভাবিক মানুষ ২৫ সেমি এর কাছের কোন বস্তুকে দেখতে পাই না। কিন্তু ২৫ সেমি থেকে দূরের অসীম দূরুত্ব পর্যন্ত যেকোন বস্তুই মানুষের দৃষ্টি দেখতে সক্ষম। আমাদের দুটি চোখ থাকার ফলে আমরা প্রায় ১৫০ থেকে ১৮০ ডিগ্রি দৃশ্য একবারে দেখতে পাই। কিন্তু তা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন হয় সেটি নির্ভর করে আপনি কেমন কোথায় থেকে কোন বিন্দু দেখছেন। অর্থাৎ আপনি যদি সমতল স্থান হতে দেখেন সেটি এক রকম এবং উচু নিচু জায়গা থেকে দেখলে সেটি অন্য রকম হবে।

চোখের ক্ষমতা
চোখের ক্ষমতা

গবেষনায় দেখা গেছে মানুষের চোখের ক্ষমতা ৫৭৬ মেগাপিক্সেল ক্যামেরার মত। আমরা ১ সেকেন্ডে যা দেখতে পাই তা আমাদের মস্তিকে প্রায় ৬০ সেকেন্ড থেকে যায়। তাহলে বুঝতেই পারছেন আপনার চোখের ক্ষমতা কত বেশি। বর্তমানে উন্নত ফোন এবং ক্যামেরার চেয়ে অনেক গুন বেশি। আর এই কারণে আমাদের চোখ ১ কোটি রঙ আলাদা ভাবে দেখতে সক্ষম হয়।

আমরা একবারে পৃথিবীর অনেকটা দেখতে পারি। এবং এটি নির্ভর করে আমরা কি দেখছি এবং কোথায় থেকে দেখছি। যদি আমারা সমতল ভূমি তে দাড়িয়ে দেখি তাহলে প্রায় কয়েক কিলোমিটার দেখতে সক্ষম হব। আর সেটি যদি পৃথিবীর মানচিত্র হয় তাহলে আমরা পৃথিবীর  অর্ধেকটা দেখতে পাব। কেননা পৃথিবীটা কিছুয়া চেপ্টা। আর আমরা যেহুতু ১৫০ ডিগ্রি দেখতে পাই তাই আমরা পৃথিবীর অর্ধেকটা দেখতে সক্ষম হব।

তাহলে একবারে পৃথিবীর কতটা দেখতে পাব?

আপনি স্থলের উপর দাঁড়িয়ে যখন একটি লম্বা বিল্ডিং দ্গন্ত থাকে ৪০ মাইল দূরে। আপনি সেটি দেখতে পারছেন কী?

পৃথিবীর যে কোন অংশ আপনি একবারে দেখতে পারেন সেটি হলো প্রায় ২,০০০ মাইল জুড়ে একটি প্যাচ। যা প্রায় সমগ্র মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে দেখতে একবারে দেখতে পাওয়ার জন্য যথেষ্ট।

পৃষ্ঠে দাঁড়িয়ে আপনি খুব আল্প দেখতে পারেন। দিগন্ত খুব কাছাকাছি। যদি আপনি উচ্চতর কক্ষেপথে থাকেন তাহলে যতটা আপনি দেখতে পাবেন পৃথিবীর অর্ধেকের সব্বোর্চ সীমা পর্যন্ত। যেমন স্যাটেলাইট।

আপনি যদি গড় উচ্চতার হন তাহলে দিগন্তের ৩ মাইল দূরুত্বের চেয়ে একটু কম আপনার আশেপাশের বৃত্তে দেখতে পাবেন। পৃথিবীর প্রতি উইকিপিডিয়া ১৯৭ মিলিয়ন বর্গ মাইল। সুতরাং আপনি পৃথিবী পৃষ্ঠের ১/৬০০০০০০ ফিট এর চেয়ে একটু কম দেখতে সক্ষম হয়েছেন। অর্থাৎ এটি প্রায় ০.০০০০১৩৪% ।

পৃথিবীর কত অংশ আপনি এক নজরে দেখতে পারেন?
পৃথিবীর কত অংশ আপনি এক নজরে দেখতে পারেন?

আপনি যদি ১০০ফুট টাওয়ারে দাঁড়িয়ে থাকেন তাহলে প্রায় ১২ মাইল এর দিগন্ত দেখতে পাবেন। যা পৃথিবী পৃষ্ঠের প্রায় ০.০০০০২৩% দেখতে সক্ষম হবেন। আর্থাৎ আপনি পৃথিবী পৃষ্ঠ থেকে ১০০ ফুট উচ্চতা আপনাকে পৃষ্ঠের ভূখন্ডে মাত্র ২ গুন বৃদ্ধি করে দেয়। এখন আপনার মাথায় প্রশ্ন আসতেই পারে কিভাবে আমরা এতোটা দূরুত্ব দেখতে পাব? হ্যাঁ অবশ্যই পাবেন। আপনি চাইলে আকাশের দিকে তাকিয়ে দেখতে পারেন যে আকাশ আমাদের থেকে অনেক দূরে অবস্থান করছে আপনি সেটও দেখতে পাবেন।

আশা করি আমি আপনাদের এটা বুঝাতে পেরেছি যে,  আমরা একবারে পৃথিবীর কতটা দেখতে পারি।

উপরোক্ত বিষয়টি পছন্দ হলে লাইক দিন, উপকারী মনে হলে অন্যদের সাথে শেয়ার করুন।

comments

shakib

I am an Muslim. It's is all about me.