WPS Office বনাম MS Office | জেনে নিন কখন কোনটি ব্যবহার করবেন

আমরা MS Office প্রোগ্রাম প্যাকেজের ওয়ার্ড, এক্সেল, এক্সেস, পাওয়ার পয়েন্ট এসবের নাম বেশ শুনেছি। কম্পিউটার বেসিক কোর্স গুলোতেও এসব শেখানো কমন একটা ব্যাপার। কম্পিউটার আছে আর আপনি এগুলোতে কাজ করেননি তা শুনলেও বড় বেমানান লাগে। কম বেশি আমরা সবাই এতে পার্সোনাল কিংবা অফিসিয়াল কাজ করে থাকি। প্রতিদিনের লিখালিখিতে এটা একটা বেশ ভালো মাধ্যম হয়ে জীবনেরই অংশ হয়ে গিয়েছে। কিন্তু মাইক্রোসফট অফিসের সীমাবদ্ধতা মোবাইল ডিভাইস, android, লিনাক্সে রয়েই গিয়েছে। এই সমস্যা সমাধানে মাইক্রোসফট অফিসের বিকল্প হয়ে উঠতে পারে WPS Office 2016 সফটওয়্যারটি। আপনি আপনার মোবাইলেও এটি ইন্সটল করে অফিস ওয়ার্ড, এক্সেল, পাওয়ার পয়েন্টের মত সুবিধা পেতে পারেন। WPS Office 2016 একটি যোগ্য প্রতিযোগী মাইক্রোসফট অফিসের। চলুন জেনে নিই কেন আপনি WPS ব্যবহার করবেন।

একদম পুরোপুরি ফ্রি লাইফ টাইম

আপনি নিশ্চয় অফিসের লিখালিখি কাজ বা অন্যান্য ডকুমেন্ট গুলো কোন না কোন ওয়ার্ড প্রসেসর কিংবা এক্সেল, পাওয়ার পয়েন্ট এর মাধ্যমে করে থাকেন। কিন্তু এগুলোর জেনুইন সফটওয়্যার গুলোকে কিনে নিতে হয় যদিও আমাদের দেশের কেউই কিনি না। কিন্তু বড় বড় কাজ গুলো করতে এবং ফিচার গুলোর সঠিক ব্যাবহার পেতে আর বাড়তি সুবিধা পেতে এগুলোকে কেনাই উত্তম। কেমন হয় যদি এই সব কিছুই সম্পূর্ণই ফ্রিতে পাওয়া যায়। WPS Office আপনাকে ফ্রিতে সেবা দিবে। যদিও একটু অন্যরকম লাগতে পারে এর ওপেন ইন্টারফেস বক্সটি নতুন অবস্থায় যারা ব্যবহার করবেন। কিন্তু একটি ফ্রি সফটওয়্যার হিসেবে সত্যি অতুলনীয়। লিখতে গিয়ে মাঝে মাঝে ছোট খাটো অ্যাড আসতে পারে। ফ্রি যেহেতু ব্যবহার করছেন সেহেতু এইটুকু সহ্য করা যেতেই পারে।

এটি ৩টি অ্যাপ্লিকেশান দ্বারা পরিচালিতঃ

  • WPS Writer (MS word এর বিকল্প)
  • WPS Spreadsheets (MS excel এর বিকল্প)
  • WPS Presentations ( MS power point এর বিকল্প)

WPS office vs MS office

তিনটির কাজই খুব ভাল এবং যদি আপনি MS Office এর কোনও সাম্প্রতিক সংস্করণ ব্যবহার করেন বা প্রকৃতপক্ষে কোনও অফিসের ওয়ার্ড প্রসেসর ব্যবহার করেন তাহলে দেখবেন বাকি গুলোর মত এটাও বেশ জনপ্রিয়তা পাচ্ছে আর সব ঘরে ঘরেই পিসিতে পাওয়া যাচ্ছে এখন। উপরোক্ত তিনটিই MS Office এর মতো একই ইন্টারফেসের ইন্টারফেস ব্যবহার করে এবং সবকটি স্বাভাবিক সরঞ্জাম এবং বিকল্পগুলি একই রকমের অবস্থায় থাকে এবং স্বতন্ত্র পজিশন থাকে।

একই ফাইল সব অফিসেই সাপোর্ট করে

অনেক ক্ষেত্রে এমন দেখা যায় যে এক সফটওয়্যার এর লিখা ফাইল একই জাতীয় অন্য সফটওয়্যারে ট্রান্সফার করলে কিংবা ওপেন করলে তা ফন্ট ভেঙ্গে যায় কিংবা তা ওপেন করলে লিখার ফরম্যাট পালটে যায়। কিন্তু মজার বিষয় হলো WPS Office এ লিখা ফাইল হুবহু MS Office এ সাপোর্ট করে। অনুরুপভাবে MS Officeএ লিখা ফাইল হুবহু WPS Office এ সাপোর্ট করে। MS Office এ তৈরিকৃত doc, docx, pdf, html, xlx, pptx  ইত্যাদি সকল ফাইল WPS Ofice এ কোন রকম প্রবলেম ছাড়াই সরাসরি সাপোর্ট করে।

একাধিক ভাষায় ব্যবহারের অভিজ্ঞতা

WPS Office 2016 personal সংস্করণ বর্তমানে ইংরেজী, ফ্রেঞ্চ, জার্মান, স্প্যানিশ, পর্তুগিজ, রাশিয়ান এবং পোলিশকে সমর্থন করে এবং স্পেল চেক এবং শব্দ-গণনা বৈশিষ্ট্য সহ আপনার অফিসের স্যুট থেকে আপনি যা যা আশা করতে পারেন এবং চাইছেন এমন সকল স্ট্যান্ডার্ড বৈশিষ্ট্যগুলি রয়েছে।

সব অপারেটিং সিস্টেম উপযোগী

WPS যে কোন অপারেটিং সিস্টেমে অবিশ্বাস্য সহজ ভাবে কাজ করে এবং এটি কম মানের পিসিতেও চালানোর উপযোগী। এমনকি পুরনো পিসিগুলিতে ইনস্টল করা যেতে পারে। কারণ এটির সাইজ অত্যন্ত ছোট। এটি অ্যানড্রয়েড, উইন্ডোজ, আইফোন এবং লিনাক্সসহ মোটামুটি সকল কমন অপারেটিং সিস্টেমেই সাপোর্ট করে।

WPS কেমন মনে হয়? 

সত্যি বলতে আমি এই মুহূর্তে অর্থাৎ আপনাদের জন্য এই পোস্ট টি WPS Office word এ লিখছি। আর এখন পর্যন্ত এর কোন ডাউনসাইড বা দুর্বলতা পাই নি আমি। WPS আসলেই একটি ভালো মানের ওয়ার্ড অ্যাপ্লিকেশন। এখনো অনেক সফটওয়্যার গবেষক এবং ডেভলোপারগণ একে উন্নত করতে কাজ করে যাচ্ছে। তবে এতে এখনো কোন ডাটা বেজ অংশ পাই নি অর্থাৎ MS access এর বিকল্প কোন অ্যাপ্লিকেশন এখনও WPS Office তৈরি করে নি। তবে MS Office এর যে মোবাইল ভার্সন আছে সেটার ফাইল সাইজ অনেক বেশি। মোবাইলে ব্যবহারের জন্য WPS Office ই সেরা তাতে কোন সন্দেহ নেই।

১ জিবি ফ্রি ক্লাউড স্টোরেজ

আপনি এটা ব্যবহার করা মাত্রই ফ্রি ১ জিবি ক্লাউড স্টোরেজ পাবেন যাতে আপনি ছবি, ভিডিও, ফাইল ইত্যাদি নিশ্চিন্তে সংরক্ষণ করতে পারবেন ১০ বছরের জন্য। এটা যদিও বা বেশি বড় কিছু নয় কিন্তু একেবারেই মন্দ নয়। তবে মাইক্রোসফট ৫ জিবি ফ্রি ক্লাউড স্টোরেজ দিয়ে থাকে যা আজীবনের জন্য।

আরো পড়ুন: MS Office Bangla Tutorial Course | মাইক্রোসফট অফিস বাংলা টিউটোরিয়াল কোর্স

সামগ্রিকভাবে, WPS Office 2016 personal সংস্করণটি মাইক্রোসফটের একটি  অসাধারণ এবং বহুমুখী বিকল্প হিসেবে খুব ভালো মানের অ্যাপ্লিকেশন। লিখা লিখি করার জন্য হোক কিংবা এক্সেলের বিপরীতে হোক অথবা আকর্ষণীয় মাল্টিমিডিয়া প্রেজেন্টেশন হোক , সব ক্ষেত্রেই এটি সত্যি খুব উপযোগী। আমি ব্যক্তিগত ভাবে এটি ব্যবহার করে খুশি। এখানে ক্লিক করে অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকে ডাউনলোড করে নিতে পারেন। এখন আপনারা ব্যবহার করে দেখতে পারেন। কিছুটা নতুন স্বাদ অন্তত পাবেন। ব্যবহার করে আপনার অনুভুতিটা জানাতে ভুলবেন না যেন।

আমার ব্যক্তিগত মতামত

আপনি যদি মনে করেন পিসিতে ক্রাক করা সফটওয়্যার ব্যবহার না করে ফ্রি ওয়্যার সফটওয়্যার ব্যবহার করব তাহলে আপনার জন্য WPS Office ই সেরা। আপনার পিসিতে র‍্যামের পরিমাণ যদি একেবারেই কম হয় তাহলে WPS Office আপনার জন্য বেটার হবে। আপনি যদি অ্যানড্রয়েড ব্যবহারকারী হয়ে থাকেন এবং গুগল ডক বা স্প্রেডশিটের অনলাইন ভার্সনের নিয়মিত ব্যবহারকারী হোন তাহলে MS Office প্যাকেজের প্রোগ্রামগুলিই আপনার জন্য ভাল হবে। তবে জন্য আপনার অনেক মেমরির প্রয়োজন হবে ফোনে কারণ ফোনে ব্যবহারের জন্য MS word, exel, powerpint সব অ্যাপগুলি আলাদা আলাদা এবং ফাইল সাইজ অনেক বেশি। আর আপনার ফোনে যদি ২ জিবি বা তার কম র‍্যাম থাকে তাহলে আপনার জন্য WPS Office বেটার হবে কারণ এক অ্যাপেই ওয়ার্ড, এক্সেল, পাওয়ার পয়েন্ট, পিডিএফ এডিটর + ভিউয়ার পেয়ে যাচ্ছেন।

উপরোক্ত বিষয়টি পছন্দ হলে লাইক দিন, উপকারী মনে হলে অন্যদের সাথে শেয়ার করুন।

comments

S.M. Sojib Ahmed

উপরোক্ত আর্টিকেলটি লিখেছেন | Email: smsojibahmed@gmail.com | Facebook: https://www.facebook.com/sojib.ahemed.5