আপনার ওয়াইফাই ব্যবহার করে কে কি ব্রাউজ করছে জানতে চান?

আজকের এই পোস্টে আপনাদের জানাব আপনার ওয়াইফাই এ লোকেরা কি ব্রাউজ করছেন তা আপনি কিভাবে দেখবেন। শুধু তাই নয় আপনি জানতে পারবেন তাদের ইউজার নেম ও পাসওয়ার্ডও। আর এই কাজটি আপনি করতে পারবেন সাধারণ একটি স্মার্টফোনের মাধ্যমে। ধরে নিন আপনার ওয়াইফাই সংযোগে একটি কম্পিউটার নেট ব্রাউজ করছে। এবার আপনি ব্রাউজকৃত তথ্য গুলো স্মার্টফোন ব্যবহার করে জানবে।


সেক্ষেত্রে আপনার প্রয়োজন হবে

  • রুট করা এন্ড্রোয়েড ফোন
  • সঠিক নেটওয়ার্ক স্নিপ এপ

নেটওয়ার্ক স্নিপ এপ ডাউনলোড ও ইন্সটল করাঃ

এবার আপনি আপনার রুট করা ফোন থেকে নেটওয়ার্ক স্নিপার এপ ডাউনলোড করে নিন। সেজন্য আপনাকে যা করতে হবে তা হল ব্রাউজার থেকে zANTI এর অফিশিয়াল ওয়েবসাইট যেতে হবে। তারপর আপনাকে আপনার ই-মেইল দিতে হবে। আপনার ই-মেইলে অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করার লিংকটি দেওয়া হবে। আপনাকে যা করতে হবে লিংক থেকে অ্যাপ্লিকেশনটিকে ডাউনলোড করে নিতে হবে। তারপর সেটিকে ইন্সটল করে নিন ফোনে। আপনার ডাউনলোড করা অ্যাপ্লিকেশনটি অবশ্যই যেন অফিশিয়াল ওয়েব সাইট থেকে ডাউনলোড করা হয়। তা না হলে আপনি কোন হ্যাকার এর ফাঁদে পা দিয়ে ফেলতে পারেন।

সব কিছু হয়ে গেলে অ্যাপ্লিকেশনটি অন করুন। সেখানে হত আপনাকে বলবে যে আপনি কেন আপনি এই নেটওয়ার্কে যোগ দিতে চান? যেহেতু তারা কি ধরনের ডাটা নিতে চায় সেটা জানায় নি তাই আমি এটি বাদ দিয়ে যাচ্ছি। তারপর তাদের টার্ম আর কন্ডিশন গুলো এক্সেপ্ট করে দিন।


কার্যপদ্ধতিঃ

অ্যাপ্সটি এখন আপনাকে সে সকল ডিভাইসের আইপি এড্রেস দেখাবে যেগুলো আপনার ওয়াইফাই এর সাথে যুক্ত। তবে মাঝে মধ্যে এটি খুঁজে পেতে কঠিন হয়ে পরে যে কোনটা কোন ডিভাইস। সাধারনত এর জন্য ফিং এপটা (fing app) ব্যবহার করার পরামর্শ দেব। এপটি অন করে আপনার নেটওয়ার্কটি স্ক্যান করুন। এবার এটি আপনাকে একই আইপি এড্রেস দিবে কিন্তু এবার ডিভাইস এর নাম সহ। এর ফলে আপনি নিশ্চিত হতে পারবেন যে আপনি আসলে কোন ডিভাইসকে ট্র্যাক করবেন।

ধরে নিন এক্ষেত্রে আপনি একটি উইন্ডোজ কম্পিউটারকে ট্র্যাক করবেন। এবার zAnti এপ এ যান আর সেখানে গিয়ে কম্পিউটারটির আইপি এড্রেসে ক্লিক করুন। এবার আপনি সেখানে অনেক গুলো অপশন দেখতে পাবেন। কিন্তু আপাতত আপনি ম্যান ইন দ্যা মিডল (Man in the middle) এ যান। এবার সবার ওপরে থাকা ফিচার টি অন করে দিন। যদি আপনি নোটিফিকেশন পান তার মানে এটি কাজ করছে। আপনি যদি আরো অপশন চান তাহলে নিচের দিকে অনেক অপশন আছে প্রয়োজন মাফিক সেগুলো ব্যবহার  করুন। যেহেতু এখন আমরা শুধু দেখতে চাই যে অন্য মানুষরা কি ব্রাউজ করছে তাই শুধু লগড রিকুয়েস্ট অপশন অন করছি। তবে তার পূর্বে সব থেকে জরুরি হল নিচের দিকে স্ক্রল করে SSL Strip এনাবেল করা। তবে আমরা এই কাজ টা পরে করব। আপাতত স্ট্রিপটি অন করে রাখবেন। এর পর ওপরের দিকে গিয়ে ভিউ লগ রিকুয়েস্ট এ যাবেন। এবার দেখা যাক এটি কাজ করছে কিনা।

ফলাফলঃ

  • সব ঠিক ঠাক মতো করা হলে কম্পিউটারটিতে কোন ওয়েব সাইট ওপেন করলে মোবাইলে zANTI প্যাকেটটি ইন্টারসেপ্ট করবে। আর এরকমটি চলবে।

  • যদি কোন পপুলার ওয়েব সাইটে প্রবেশ করা হয় তবে মোবাইলে সেটি দেখা যাবে না। যেমন- ফেসবুক, টুইটার, গুগল ইত্যাদি।

  • এমাজন ডট ইন্ডিয়া তে যদি প্রবেশ করা হয় তাহলে দেখা যাবে যে মোবাইলে আবারও দেখাবে। সে যদি এমাজন এ তার ইউজার ও পাসওয়ার্ড দেয় তাহলে মোবাইলে ক্লিক করার সাথে সাথে ইউজার ও পাসওয়ার্ড দেখা যাবে।

যেভাবে কাজ করেঃ

সাধারনত ম্যান ইন দ্যা মিডল এট্যাক না করলে ওয়াইফাই ব্যবহারকারী সরাসরি সার্ভারের সাথে যোগাযোগ করে । কিন্তু ম্যান ইন দ্যা মিডল এট্যাক দিলে ব্যবহারকারী আপনি চলে আসবেন মাঝখানে আর জেনে নিতে পাবেন তথ্য গুলো। ম্যান ইন স্যা মিডল এট্যাক সাধারন ওয়েব সাইটে কাজ করে আর পপুলার ওয়েব সাইটে করে না। কারণ এটি সে সকল ওয়েব সাইটে কাজ করে না যেগুলো  https:// সাপোর্ট করে। একই ভাবে ভিপিএন ব্যবহারকারী হলে ম্যান ইন স্যা মিডল এট্যাক কাজ করবে না। এমাজন এর ব্যাপারটা একটু আলাদা। এমাজন এর ১৪ টির মতো ওয়েব সাইট আছে বিভিন্ন দেশে। যার সবগুলো https ব্যবহারকারী শুধু মাত্র  amajon.india ছাড়া। আবার অনেক ক্ষেত্রে https কে SSL এর মাধ্যমে ভেঙে  http করা যায়।আমি প্রথমে বলেছিলাম SSL Strip অন রাখার জন্য। আর এটি অন রাখার জন্যই https এর কার্যকরীতা হারায়। তবে এটি সকল ক্ষেত্রে নয় কিছু কিছু ক্ষেত্রে।

উপরোক্ত বিষয়টি পছন্দ হলে লাইক দিন, উপকারী মনে হলে অন্যদের সাথে শেয়ার করুন।

comments

Admin

উপরোক্ত আর্টিকেলটি লিখেছেন | Email: admin@banglacourse.com | Facebook: www.facebook.com/BanglaCourse