আমার ব্যবহ্নত ৫টি সেরা VPN

VPN কি? বা এটা দিয়ে কি কাজ করতে হয় সেটা যদি না জেনে থাকেন তাহলে প্রথমেই এই পোস্টটি পড়ে নিন। অনলাইনে নিজের গোপনীয়তা বজায় রাখা এখন সকলেরই অনেক বড় ধরণের চিন্তার বিষয়। এই ক্ষেত্রে নিজের গোপনীয়তা বজায় রাখতে ভিপিএন অনেক সাহায্য করে। অনেক ধরণের ভিপিএন পাওয়া যায়। সেরকম অনেক গুলো ভিপিএন এর মাঝে সব থেকে ভালো শীর্ষ ৫টি ভিপিএন এর ব্যাপারে আজকে আপনাদের জানাবো।

অনেক ভিপিএন এর সেবা আছে ব্যবহার করার জন্য। যার যেটা ভালো লাগে সে সেটা ব্যবহার করে থাকে। এ সকল ভিপিএন পেইড এবং বিন্যামুল্যে উভয় ধরনের হয়। আবার কিছু এমন থাকে যে ভিপিএন কিছু বৈশিষ্ট্য ফ্রিতে ব্যবহারের জন্য উন্মক্ত করে দেয় আর বাকি সুবিধা সমূহ থাকে আড়ালে। যেগুলো ব্যবহার করার জন্য কিছু পরিমাণ $ পে করতে হয়। আবার কিছু থাকে সম্পূর্ণ উন্মক্ত ব্যবহারের জন্য। আবার কিছু কিছু VPN থাকে যার প্রত্যেকটি ফিচার ব্যবহার করতেই পেমেন্ট দেয়া আবশ্যক।

বর্তমান সময়ে ইন্টারনেট ব্যবহার করে না এমন লোক খুঁজে পাওয়া মুশকিল। কিন্তু সেই ইন্টারনেট জগতেও সুরক্ষিত থাকাও একটি বড় সমস্যা। মানুষকে এই সুরক্ষা দেওয়ার জন্য কাজ করে যাচ্ছে ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক বা ভিপিএন।


Tunnel Bear VPN

টানেলবিয়ারের ডিজাইন অনেকটা হালকা ও সিম্পল ডিজাইনকৃত এপ্লিকেশন। কিন্তু ডিজাইন হালকা হওয়ার এর কর্ম দক্ষতাকে হালকা ভাবে নেবেন না। এটি একটি ছোট্ট ভিপিএন কিন্তু সুরক্ষা দেওয়ার ক্ষেত্রে অনেক বড় ভূমিকা পালন করে। এটি একটি বিনামূল্যে এবং সাবস্ক্রিপশন ভিত্তিক মডেল। এটির বিনামূল্যের সংস্করণে কিছু লিমিটেশন রয়েছে। তবে বিভিন্ন সোস্যাল সাইটে প্রমোশন লিংক শেয়ার করে ফ্রি আপগ্রেড করতে পারেন।

মূল বৈশিষ্ট্যঃ

  • ব্যক্তিগত ব্রাউজিং- আপনার ডেটা সুরক্ষিত করে আইপি এড্রেস লুকিয়ে রাখুন।
  • ট্যাকার ব্লকিং- ওয়েবসাইট ট্র্যাকার গুলো ব্লক করে রাখুন।
  • বাইপাস কান্ট্রি সেন্সরশিপ- যেসকল সাইট এক্সেস করা নিষেধ সেগুলো এক্সেস করতে পারবেন।

hotspot shield VPN

এটি অনেক স্ট্রং ও খুব সহজে একে ব্যবহার করা যায়। বর্তমানে এই ভিপিএন সার্ভিসের ৫০০ মিলিয়ন ব্যবহারকারী রয়েছে।

মূল বৈশিষ্ট্যেঃ

  • ওয়েবসাইল আনব্লকঃ যে কোন ধরনের ব্লক করা সাইট গুলোও এক্সেস করা সম্ভব।
  • আইপি এড্রেসঃ আপনার অনলাইনের কার্যক্রম পর্যবেক্ষণ থেকে রক্ষা করে ও আইপি এড্রেস এর সুরক্ষা নিশ্চিত করে।
  • এনোমাইজ ওয়েব সার্ফিং- এর মাধ্যমে আপনি কারো দ্বারা ট্র্যাক না হয়ে ব্রাউজারে ইচ্ছেমত ব্রাউজ করতে পারবেন।
  • ওয়াইফাই নিরাপত্তা- ওপেন পাবলিক ওয়াইফাই বা যেগুলা অসুরক্ষিত ওয়েব সাইট সেগুলো ব্যবহারে অতিরিক্ত নিরাপত্তা দিয়ে থাকে।
  • ওয়েব সেশন- https এঙ্ক্রিপশন সহ আপনার ডাটা ও ব্যক্তিগত তথ্য অনলাইনে সুরক্ষা দেয়।

ZenMate VPN

যেনমেট হল একটি লাইট ওয়েট ব্রাউজার। এর কোন সাইন আপ নেই এবং শুধুমাত্র আপনি আপনার ইমেইল ব্যবহার করে সুরক্ষিত এবং ব্যক্তিগত ব্রাউজিং এর সেবা পাবেন।

এটি ইন্সটল করার পর সবুজ আলো প্রদর্শন এর মাধ্যমে আপনাকে সংকেত দেবে যে আপনি সুরক্ষিত আছেন। ব্রাউজার ট্রাফিকটি ডিফল্ট হিসেবে সুইজারল্যান্ড এর মাধ্যমে রুট হয়। কিন্তু এক্সটেনশন হংকং, ইউ কে , মার্কিন এবং জার্মান প্রক্সি দেওয়ার মতো বিকল্প ব্যবস্থাও আছে।

Avira Phantom VPN

বিনামূল্যে দেওয়া এই ভিপিএন আপনাকে প্রতি মাসে ৫০০ এম্বি ব্রাউজিং ডেটা দেয়। যেটা পিসি ও স্মার্টফোন দুটোতেই ব্যবহার যোগ্য। শুধু তাই নয় এর আছে দূর্দান্ত কিছু বৈশিষ্ট্য যা নিম্নরূপঃ

  • ট্রাফিক এঙ্ক্রিপশন
  • ব্যক্তিগত সার্ফিং
  • জিও-রেস্ট্রিক্টেড সাইট এক্সেস
  • ডিএনেস লিক প্রিভেনশন
  • স্বয়ংক্রিয় ভাবে ওয়াইফাই নেটওয়ার্কে সংযুক্ত

Radmin VPN

এটি সত্যি একটি চমৎকার ভিপিএন সার্ভিস। এটি আইটি পেশাদারদের জন্য উপযুক্ত একটি ভিপিএন। তাছাড়া আপনি ভিপিএন থেকে যে সমস্ত সুবিধা আশা করেন সেসকল সুবিধাদমূহ তারা দিয়ে থাকেন। এর উচ্চগতি ১০০ এম্বিপি/সেকেন্ড পর্যন্ত হয়ে থাকে। এটি আনলিমিটেড সার্ভিস দিয়ে থাকে। যার কারণে ব্যবসায়ীদের জন্য এটা একদম পার্ফেক্ট।  রেডমিন ভিপিএন এর সব থেকে মজার জিনিস হল এটি একদম ১০০% ফ্রি সেবা দেয়। এর প্রিমিমাম সাবক্রিপশন নেই আর এর কোন বৈশিষ্ট্য পে অল এর জন্য লক করাও নেই। আর আপনি জেনে অবাক হবেন যে আপনার ইন্সটল করা সফটওয়্যার টি সম্পুর্ণ একটি প্যাকেজ।

উপরোক্ত বিষয়টি পছন্দ হলে লাইক দিন, উপকারী মনে হলে অন্যদের সাথে শেয়ার করুন।

comments

Admin

উপরোক্ত আর্টিকেলটি লিখেছেন | Email: admin@banglacourse.com | Facebook: www.facebook.com/BanglaCourse